মেনু নির্বাচন করুন

শিরোনাম
রাজাপুর জমিদার বাড়ী ও মহারাজ মিয়া বঙ্গবন্ধু স্মৃতি যাদুঘর,
কিভাবে যাওয়া যায়

ধমর্পাশা উপজেলা থেকে শুকনা মৌসুমে মটরসাইকেল, লেগুনা, রিক্সা ও বর্ষা মৌসুমে ট্রলার লঞ্চ যোগে সুখাইড় রাজাপুর দক্ষিণ ইউনিয়ন পরিষদ সংলগ্ন রাজাপুর বাজারে আসা যায়।

 

উপজেলা হতে ইউনিয়নে যাতায়াত ব্যবস্থা:

মটরসাইকেল ভাড়া------১০০ টাকা (জন প্রতি)

রিক্সা -----------------------৮০টাকা  (জন প্রতি)

ট্রলার ভাড়ার হার---------২০ টাকা (জন প্রতি)

লঞ্চ ভাড়ার হার-----------৩০ টাকা (জন প্রতি)

সুখাইড় রাজাপুর দক্ষিণ ইউনিয়ন থেকে বিভিন্ন গ্রামে যাতায়াতের তথ্য:

মটরসাইকেল, ট্রলার,

যোগাযোগ

রাজাপুর জমিদার বাড়ী ও মহারাজ মিয়া বঙ্গবন্ধু স্মৃতি যাদুঘর,                                                                                                                                                                                                                                  ধর্মপাশা,সুনামগঞ্জ।

বিস্তারিত

রাজাপুর জমিদার বাড়ী ও মহারাজ মিয়া বঙ্গবন্ধু স্মৃতি যাদুঘর       ধর্মপাশা,সুনামগঞ্জ।                                                                                                                                                                                                  

১৯৭০ এর নির্বাচনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান নির্বাচনী প্রচারনার কাজে দূর্গম হাওর এলাকা সুখাইড় রাজাপুর দক্ষিণ ইউনিয়নের মরহুম মনছব রাজা চোধুরীর এ বাড়ীতে অবস্থান করে প্রচার প্রচারনা চালান। বঙ্গবন্ধু সকাল থেকে সন্ধাবধি এখানে অবস্থানকালীন বাড়ী সংলগ্ন মসজিদে নামাজ আদায় করেন। বর্তমানে উনার ছেলে সুখাইড় রাজাপুর (দঃ) এর চেয়ারম্যান জনাব আমানুর রাজা চোধুরীর প্রচেষ্টায় গড়ে উঠেছে এই যাদুঘরটি। জাতীর পিতার পদধুলী ধন্য এ বাড়ীতে বৃহত্তাকারে সরকারী ভাবে যাদুঘর করা হলে এটি হতে পারে হাওর এলাকায় জনপদেরর আদর্শ ও দর্শনীয় স্থান।